মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নির্যাতনের মুখে কক্সবাজারে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গা নেতাদের মাধ্যমে সারাদেশে বিক্রি হচ্ছে ইয়াবা। আর ইয়াবা বিক্রির টাকায় ক্যাম্পে সরবরাহ করা হচ্ছে বিদেশি অস্ত্র। ঢাকা থেকে অস্ত্র কিনে ক্যাম্পে যাওয়ার পথে চট্টগ্রাম নগরীর নতুনব্রিজ এলাকায় অভিযান চালিয়ে এক ইয়াবা ব্যবসায়ীকে অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বুধবার (৪ নভেম্বর) দিবাগত রাত সাড়ে ১২টায় তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তার দেওয়া তথ্যমতে টেকনাফ থানার সহযোগিতায় টেকনাফের লেদা ক্যাম্পের পাশ থেকে গ্রেপ্তার করা হয় আরেক মাদক ও অস্ত্র ব্যবসায়ী কামাল উদ্দিনকে।

গ্রেপ্তার আব্দুর রাজ্জাক কক্সবাজারের টেকনাফের হৃীলা ইউনিয়নের আবু ইউসুফের ছেলে এবং কামাল একই এলাকার সিকদার মির্জার ছেলে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বাকলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নেজাম উদ্দিন চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, রাজ্জাক ও কামাল কক্সবাজারে স্থায়ী বাসিন্দা হলেও পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানায় মিয়ানমার থেকে রোহিঙ্গাদের মাধ্যমে আসা ইয়াবা তারা সারাদেশে বিক্রি করেন এবং বাহির থেকে অস্ত্র কিনে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সরবরাহ করেন। ইয়াবা ব্যবসার সুবিধার্তে কামাল দ্বিতীয় বিয়ে করেছেন রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বাসিন্দা এক নারীকে।

ওসি নেজাম আরও বলেন, এই চক্র দীর্ঘদিন ধরে ক্যাম্পে অস্ত্র সরবরাহ করে আসছে। তাদের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়েছে। আদালত আসামিদের কারাগারে পাঠিয়ে রোববার শুনানির দিন ধার্য করেছেন।