সিলেটের বিশ্বনাথে আপন ভাতিজিকে (১৮) ধর্ষণের অভিযোগে আবদুর রশীদ (৩৫) নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে বিশ্বনাথ উপজেলা সদরে এ ঘটনাটি ঘটে। ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে রশীদকে আটক ও ভুক্তভোগী তরুণীকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

আজ শনিবার সকালে তরুণী বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করলে ওই মামলায় তাকে গ্রেপ্তার দেখায় পুলিশ। মামলার এজাহারের বাদী উল্লেখ করেন, তিনি দু’বছর ধরে তার ফুফুর সঙ্গে বসবাস করে আসছেন। কাজ করেন একটি টেইলার্সে। তার আপন চাচা আবদুর রশীদ বিশ্বনাথেরগাঁও গ্রামের একটি ভাড়াটে বাসায় বসবাস করেন। তিনি বিশ্বনাথ বাজারে একটি বীজের দোকানে কর্মচারী হিসেবে কাজ করে আসছেন। প্রায় দু’মাস আগে তরুণী তার ভাইয়ের বিয়েতে গোলাপগঞ্জের গ্রামের বাড়িতে গেলে সেখানে রশীদ তাকে ধর্ষণ করেন। গতকাল শুক্রবার দিবাগত রাতে তরুণীর ফুফুর বাসার আসেন চাচা আবদুর রশিদ। সেখানে রাতের খাওয়া শেষে রাত ১২টার দিকে একটি কল রেকর্ড শোনানোর কথা বলে তাকে একটি রুমে ডেকে নিয়ে ফের ধর্ষণ করেন রশীদ।

বিশ্বনাথ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শামীম মুসা জানান, গ্রেপ্তার আসামিকে আজ দুপুরে সিলেটের আদালতে পাঠানো হয়েছে। ভুক্তভোগী তরুণীকে সিলেট ওসমানী হাসপাতালের ওসিসি সেন্টারে ভর্তি করা হয়েছে।