শাহেদ মিজান, সিবিএন:

কক্সবাজারের টেকনাফের নাফ নদী থেকে ৫ লাখ ২০ হাজার ইয়াবা জব্দ করেছে বিজিবি। এসময় একটি দেশীয় তৈরী বন্দুক, দুই রাউন্ড কার্তুজ ও একটি দেশীয় কিরিস উদ্ধার করা হয়।

রোববার (১৭ জানুয়ারী) ভোররাতে নাফনদীর দমদমিয়া বিওপির ওমরখাল থেকে এসব ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। তবে এঘটনায় কোন পাচারকারীকে আটক করতে পারেনি বিজিবি।

বিজিবি কর্মকর্তারা বলেন, ভোররাতে ওমরখাল পয়েন্ট দিয়ে ইয়াবার একটি চালান আসবে এমন খবর টহল দিতে থাকে বিজিবি সদস্যরা। তার কিছুক্ষণ পর চার যুবককে একটি নৌকা করে বাংলাদেশের দিকে আসতে দেখা যায়। পরে তারা বাংলাদেশ সীমানার এক কিলোমিটার ভেতরে প্রবেশ করলে তাদের থামতে বলা হয়। কিন্তু তারা না থেমে গুলিবর্ষণ করে। আত্মরক্ষার্থে বিজিবিও গুলি চালালে তারা গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পানিতে ঝাপিয়ে পড়ে। অনেক খোঁজাখুঁজির পর তাদের পাওয়া যায়নি। পরে ওই নৌকায় ৫ টি প্লাস্টিকের বস্তায় ৫ লাখ ২০ হাজার ইয়াবা জব্দ করা হয়। এসব ইয়াবার আনুমানিক বাজার মূল্য ১৫ কোটি ৬০ লাখ টাকা।

বিষয়টি নিশ্চিত করে টেকনাফস্থ ২বিজিবির উপ-অধিনায়ক মেজর রুবায়েত কবীর বলেন, নৌকা নিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশের সময় ৫ লাখ ২০ হাজার ইয়াবা জব্দ করা হয়। দেশীয় অস্ত্র ও কিরিস পাওয়া যায়।