বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজার করোনা টেস্ট পজিটিভ হয়েছে। এর আগে কিছুদিন ধরে জ্বরে ভুগছিলেন মাশরাফি। জ্বর বেশ কয়েকদিন স্থায়ী হলে করোনা টেস্ট করান নড়াইল এক্সপ্রেস। বর্তমানে নিজ বাসায় আইসোলেশনে আছেন বলে জানা গেছে।

এর আগে কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত হয়েছেন বাংলাদেশ দলের সাবেক অধিনায়কের শাশুড়ি ও তার স্ত্রী সুমনা হকের এক ভাগনি। ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন তারা। তবে তাদের সংস্পর্শে আসেননি মাশরাফি। আক্রান্ত হয়েছে অন্য কোনোভাবে।

করোনাভাইরাসের প্রকোপ শুরুর পর এলাকার মানুষের সহায়তার জন্য দুই দফায় নড়াইল গিয়েছিলেন মাশরাফি। তবে সেটিও বেশ আগে। নড়াইল থেকে ঢাকায় ফিরে আলাদা একটি বাসায় কোয়ারেন্টিনে ছিলেন দুই সপ্তাহ। তার পর বাসায় ফিরে সাবধানেই ছিলেন। বাইরে খুব-একটা যাননি। তার পরও রক্ষা পেলেন না আক্রান্ত হওয়া থেকে।

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক এই অধিনায়কের করোনাভাইরাস আক্রান্তের খবর প্রকাশ হতেই সামাজিক মাধ্যম ছেয়ে যায় তার জন্য প্রার্থনায়। মাশরাফি নিজেও তার অফিশিয়াল ফেসবুক পেজ থেকে দেশবাসীর কাছে দোয়া চাইলেন।

বাংলাদেশ জার্নালের পাঠকদের জন্য মাশরাফির স্ট্যাটাসটি হুবুহু তুলে দেওয়া হলো…

‘আজকে আমার রেজাল্ট COVID-19 পজিটিভ এসেছে। সবাই আমার জন্যে দোয়া করবেন যাতে খুব তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে উঠতে পারি। আক্রান্ত সংখ্যা এক লাখ ছাড়িয়ে গেছে। আমাদের সবাইকে এখন আরো সতর্ক হতে হবে। সবাই ঘর থেকে বিনা প্রয়োজনে বের না হই।

আমি বর্তমানে বাসায় থেকেই চিকিৎসা নিয়ে যাচ্ছি এবং প্রয়োজনীয় বিধি নিষেধ মেনে চলছি।

করোনা নিয়ে আতংক নয়, সচেতনতা বৃদ্ধি প্রয়োজন।’