দেশজুড়ে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেওয়া হলেও তা ‘থোড়াই কেয়ার’ করে বিয়ে করতে চট্টগ্রাম যান এক ব্যাংকার। বিয়েও করেছেন তিনি। কিন্তু সরকারি বিধি না মানা ও সামাজিক দূরত্ব বিনষ্ট করায় তাকে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

ব্যাংকার ওই বরের নাম আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ। তাকে ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। পাশাপাশি নব দম্পতিকে পৃথক কোয়ারেন্টিনে থাকার নির্দেশও দিয়েছেন চট্টগ্রামের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

করোনা পরিস্থিতিতে চলমান সরকারি বিধি না মেনে বিয়ের খবর পেয়ে গত শুক্রবার বোয়ালখালী উপজেলার কদুরখীল ইউনিয়নের জমাদার বাড়ির আব্দুল হকের বাড়িতে অভিযান পরিচালনা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। অভিযানের নেতৃত্ব দেন বোয়ালখালীর সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মোজাম্মেল হক চৌধুরী।

মোজাম্মেল জানান, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে দেশব্যাপী চলা সতর্কতামূলক বিধি-নিষেধ না মেনে ওই ব্যাংক কর্মকর্তা গত ২৭ এপ্রিল কর্মস্থল ঢাকা থেকে বোয়ালখালী আসেন। তিনি কোয়ারেন্টিনে না থেকে শুক্রবার উপজেলার করলডাঙা ইউনিয়নের এক মেয়েকে বিয়ে করেন।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বলেন, খবর পেয়ে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ ঘটনাস্থলে গিয়ে বর আব্দুল্লাহ আল মাহমুদকে ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া নবদম্পতিকে ১৪ দিনের পৃথক হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।